খতিয়ান অনুসন্ধান

বি আর এস খতিয়ান যাচাই

আপনি যদি বি আর এস খতিয়ান অনলাইন যাচাই করতে চান তাহলে খুব সহজেই করতে পারেন মোবাইল দিয়ে সেই পক্রিয়া দেখাব আজকের এই পোষ্টে। এই পোষ্ট থেকে আপনি জানতে পারবেন বি আর এস খতিয়ান যাচাই করতে হয় কিভাবে? বি আর এস রেকর্ড যাচাই সব জানতে পারবেন।

বি আর এস খতিয়ান জমির খুবি গুরুত্বপূর্ণ একটি ডকুমেন্ট এই জন্য বিভিন্ন কারণে বি আর এস রেকর্ড যাচাই করার দরকার হয়, খুশির বিষয় হলো এখন আমাদের আগের মত আর ভূমি অফিসে গিয়ে বি আর এস খতিয়ান যাচাই করতে হবেনা, এখন আমরা ঘড়ে বসেই মোবাইল ফোন দিয়ে মাত্র ২ থেকে ৩ টি তথ্য সাবমিট করে Brs Khatian Online যাচাই করতে পারব।

আমরা অনেকেই জানিনা বি আর এস খতিয়ান কি এবং এটা কিভাবে কাজ করে, তাই বি আর এস খতিয়ান অনলাইন যাচাই করার আগে আমাদের জেনে নেওয়া দরকার বি আর এস খতিয়ান কি?

বি আর এস খতিয়ান যাচাই করতে তথ্য

Brs Khatian Online যাচাই করার করার জন্য আপনার কিছু তথ্য দরকার হবে, সে তথ্য গুলো যদি আপনার কাছে থাকে এবং একই সাথে খতিয়ানটি অনলাইন হয়ে থাকে তাহলে আপনি বি আর এস খতিয়ান অনলাইন চেক করতে পারবেন। বি আর এস রেকর্ড যাচাই করার জন্য খুব বেশি ডকুমেন্ট দরকার হয়না, আপনার কাছে যদি বি আর এস খতিয়ানটির যেকোন একটি তথ্য অর্থাৎ বি আর এস খতিয়ান নম্বর, দাগ নম্বর, মালিকানা নাম – থাকে তাহলে আপনি বি আর এস খতিয়ান অনলাইন-এ যাচাই করতে পারবেন।

বি আর এস রেকর্ড যাচাই করতে দরকারি তথ্য গুলো হলোঃ বি আর এস খতিয়ান নম্বর, দাগ নম্বর, মালিকানা নাম, এর মধ্যে যেকোন একটি।

এবং তারপর দরকার হবে আপনার জমির এড্রেস, জমির এড্রেস একটি গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে বি আর এস খতিয়ান অনলাইন চেক করার জন্য, কারণ বাংলাদেশের সকল জায়গার বি আর এস রেকর্ড এখনো অনলাইন করা হয়নি আর জন্যই অনেক যায়গার বি আর এস খতিয়ান যাচাই করা যায়না।

এছাড়া অনেকে জমির স্থায়ি ঠিকানা সঠিক ভাবে বাছাই না করার জন্য বি আর এস খতিয়ান অনলাইন-এ যাচাই করতে পারেন না। Brs Khatian Online যাচাই করার জন্য জমির সঠিক স্থায়ী ঠিকানা জানা থাকা এবং নির্বাচন করা আবশ্যক।

বি আর এস খতিয়ান যাচাই করতে জমির ঠিকানা দরকার হয়ঃ যেমন –

  • বিভাগ
  • জেলা
  • উপজেলা
  • মৌজা

জমির ঠিকানা এবং বি আর এস খতিয়ান এর তথ্য জানা থাকলেই আপনি অনলাইনে বি আর এস খতিয়ান যাচাই করতে পারবেন।

বি আর এস খতিয়ান অনলাইন-এ যাচাই করার নিয়ম

বি আর এস খতিয়ান যাচাই করার জন্য যেতে হবে বাংলাদেশ ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে, তারপর সেখান থেকে মেনু বাছাই করতে হবে সার্ভে খতিয়ান, এরপর যথাক্রমে আপনার জমির স্থায়ী ঠিকানা বাছাই করতে হবে, খতিয়ানের ধরন অর্থাৎ বি আর এস খতিয়ান বাছাই করতে হবে, এবং শেষে খতিয়ানের তালিকা অপশনে আপনার বি আর এস পর্চার তথ্যটি দিয়ে খুঁজুন বাটনে ক্লিক করলে অন্যান্য সকল তথ্য দেখতে পারবেন।

বি আর এস রেকর্ড চেক করার বিস্তারিত | Brs Khatian Online

প্রথম ধাপে Eporcha gov bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন এই লিংক থেকে, তারপর আপনি যেহেতু বি আর এস খতিয়ান যাচাই করবেন এবং এটি একটি সার্ভে খতিয়ান এই জন্য সার্ভে খতিয়ান মেনু বাছাই করুন।

দ্বিতীয় ধাপে আপনার ঠিকানা বাছাই করুন, যথাক্রমে এই রকম দিন, যেমন – সিলেট, হবিগঞ্জ, নবিগঞ্জ, তারপর খতিয়ানের ধরন (বি আর এস) নির্বাচন করুন। তারপর আপনার জমির গ্রাম/মৌজা নির্বাচন করুন।

তারপর খতিয়ানের তালিকা নং অপশনে আপনার খতিয়ান নং দিয়ে খুঁজুন বাটনে ক্লিক করুন, যদি খতিয়ান নং না থাকে তাহলে দাগ নাম্বার অথবা মালিকানা নাম দিয়ে বি আর এস রেকর্ড চেক করতে পারবেন।

দাগ নাম্বার অথবা মালিকানা নাম দিয়ে Brs Khatian Online অনুসন্ধান করার জন্য অধিকতর অনুসন্ধান বাটনে ছ্যাপুন তারপর দাগ নাম্বার অথবা মালিকানা নাম দিয়ে আবারও খুঁজুন বাটনে ক্লিক করুন।

তাহলেই আপনার খতিয়ানের তথ্য দেখতে পারবেন। এবং আরও কিছু তথ্য দিয়ে ১০০ টাকা থেকে ১৪০ টাকা ফী প্রধান করে বি আর এস খতিয়ান ডাউনলোড করতে পারবেন।

বি আর এস খতিয়ান ডাউনলোড করতে আমাদের এই পোষ্ট পরতে পারেন।

উপসংহার

বি আর এস খতিয়ান যাচাই করা সম্পর্কে আমরা বিস্তারিত লিখেছি আশা করছি এই পোষ্ট থেকে আপনি উপকৃত হবেন। এই পোষ্ট থেকে নতুন কিছু শিখে থাকলে শেয়ার করে অন্যদের মধ্যে ছড়িয়ে দিন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button